You are currently viewing অলিম্পিকের কিছু তথ্য ও তার তালিকা PDF সহ
অলিম্পিকের কিছু তথ্য ও তার তালিকা PDF সহ

অলিম্পিকের কিছু তথ্য ও তার তালিকা PDF সহ

অলিম্পিকের কিছু তথ্য

প্রাচীন গ্রিসে দেবতাদের বাসভূমি হিসেবে স্বীকৃত অলিম্পাস পাহাড়ের পাদদেশে গ্রিক দেবতাদের সম্মানার্থে যে খেলাধুলার প্রতিযোগিতা আয়োজন করা হতো তা অলিম্পিক গেমস নামে পরিচিত। খ্রিস্ট-পূর্ব ৭৭৬ অব্দ হতে ৩৯৬ খ্রিষ্টাব্দ সময়কালে এ খেলা প্রচলিত ছিল। পরবর্তীতে ১৮৯৬ সালে ফ্রান্সের ব্যারন পিয়ের দ্য কুবেরত্যাঁ’র উদ্যোগে আধুনিক অলিম্পিক গেমস পুনরায় প্রচলিত হয়।

১৮৯৬ সালে গ্রিসের এথেন্সে ১ম গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক এবং ১৯২৪ সালে ফ্রান্সের চ্যামোনিক্সে ১ম শীতকালীন অলিম্পিক ক্রীড়া আসর বসেছিল। ২০১০ সালে সিঙ্গাপুরে ১ম গ্রীষ্মকালীন যুব অলিম্পিক এবং ২০১২ সালে ইন্সব্রুকে ১ম শীতকালীন যুব অলিম্পিক ক্রীড়া অনুষ্ঠিত হয়।[১]

             অলিম্পিকের কিছু তথ্য ও তার তালিকা PDF সহ

প্রথম অলিম্পিক খেলা শুরু হয়েছিল ৭৭৬ খ্রিঃ পূঃ গ্রিসের অলিম্পিয়া পর্বতের পাদদেশে প্রাচিন অলিম্পিক ক্রীড়া শুরু করেন এলিস অঙ্গরাজ্যের রাজা এফিতাস।
আধুনিক অলিম্পিক গেমসের প্রধান রূপকার ফরাসি ক্রীড়ামোদী ব্যারন পিয়ের দ্য কুবার্তা ১৮৯৬ সালে গ্রিসের রাজধানী এথেন্সে প্যানাথেনিয়াম স্টেডিয়ামে আধুনিক অলিম্পিক শুরু করেন
অলিম্পিক গেমসে প্রথম চ্যাম্পিয়ন জেমস কলোনি (আমেরিকা)।
অলিম্পিক গেমসে সোনার পদক দেওয়া শুরু হয়। ১৯০৮-এর লণ্ডন অলিম্পিক থেকে।
অলিম্পিক গেমসে হকি ও ফুটবল শুরু হয়

অলিম্পিক গেমসে মহিলা সাঁতারুরা প্রথম অংশ নেন।

১৯০৮-এর লণ্ডন অলিম্পিক থেকে।

১৯১২-র স্টকহোম অলিম্পিকে।

অলিম্পিক গেমসে ক্রিকেট (প্রথম ও শেষবার) ১৯০০ সালের প্যারিস অলিম্পিকে।
অলিম্পিক গেমসে অ্যাথলেটিক্সে প্রথম মেয়েরা যোগদান করে ১৯২৮-এর আমস্টারডার্স অলিম্পিকে।
অলিম্পিক গেমসে হকি শুরু হয়। ১৯০৮-এর লন্ডন অলিম্পিকে।
অলিম্পিক গেমসে অ্যাথলেটিক্সে প্রথম মেয়েরা যোগদান করে ১৯২৮ সালে, আমস্টারডামে।
ভারত প্রথম অলিম্পিক হকিতে জয়যুক্ত হয় ১৯২৮ সালে।
অলিম্পিক গেমসে জিমন্যাস্টিক শুরু হয় ১৮৯৬ সালে।
অলিম্পিক আসরে প্রথম প্রতিযোগিতায় জয়লাভ করে। ইংল্যান্ড।
ভলিবল অলিম্পিক গেমসে অন্তর্ভুক্ত হয়। ১৯৬৪ সালে।
অলিম্পিকে প্রথম হ্যান্ডবল খেলা অন্তর্ভুক্ত হয়। ১৯৩৬ সালে, বার্লিন অলিম্পিকে।
অলিম্পিক গেমসে বক্সিং অন্তর্ভুক্ত হয়। ১৮৯৬ সালে।
এশিয়া মহাদেশে প্রথম অলিম্পিক আসর বসে ১৯৬৪ সালে।
অলিম্পিকে পূতাগ্নি (মশাল) সর্বপ্রথম শুরু হয়। ১৯২৮, আমস্টারডামে।
প্রথম শীতকালীন অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হয় ফ্রান্সে।
‘প্যানক্রেশিয়ন’ হল প্রাচিন অলিম্পিকে কুস্তি ও বক্সিং-এর মিশ্রিত একটি খেলা।
প্রথম ভারতীয় হিসেবে, ব্যক্তিগতভাবে অলিম্পিকে ব্যান্টামওয়েট কুস্তিতে ব্রোঞ্জ পদক লাভ করেন কেশব দাদা যাদব (১৯৫২, হেলসিঙ্কি অলিম্পিক)
স্বামী-স্ত্রী হিসেবে যথাক্রমে দৌড় ও জ্যাভেলিন থ্রো-তে স্বর্ণপদক পান পূর্বতন চেকোস্লোভাকিয়ার এমিল জাটোপেক ও ডানা জাটোপেক।
একমাত্র সোভিয়েত প্রতিযোগীরূপে এ পর্যন্ত অলিম্পিকে ১০০ মিটার দৌড়ে পুরুষ বিভাগে সোনা পেয়েছেন ভালেরি বোরজোভ (১৯৭২, মিউনিখ অলিম্পিক)
ব্রিটেনের হ্যারল্ড আব্রাহামস আর এরিক লিডেল দুই কিংবদন্তি অলিম্পিক অ্যাথলিট-এর জীবনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে—‘চ্যারিয়টস অব ফায়ার’ ছায়াছবিটি।
অলিম্পিকে সর্বপ্রথম ম্যারাথন দৌড়ে সোনা জেতেন গ্রিসের এক মেষপালক—স্পিরোস লিউইস। এরপর এখনও পর্যন্ত কোনও গ্রিক আর ম্যারাথনে সোনা পায়নি।
সন্তানের জননী হওয়া সত্ত্বেও ‘বিস্ময়কর মা’ (Marvellous Mamma) নামে পরিচিত ডেনমার্কের ফ্যানি ব্ল্যাংকার্স কোহেন, ১৯৪৮-এর লন্ডন অলিম্পিকে ১০০ মিটার দৌড়ে সোনা জেতেন।
বি ভাস্করণের নেতৃত্বে ভারতীয় পুরুষ হকি দল সর্বশেষ অলিম্পিক সোনা জেতে ১৯৮০-র মস্কো অলিম্পিকে। প্রতিপক্ষ স্পেনের হয়ে ফাইনালে হ্যাটট্রিক করেন হুয়ান আমাত।
কিউবা-র মুষ্ঠিযোদ্ধা তিওফেলো স্টিভেনসন হেভিওয়েট বক্সিংয়ে পর পর ৩টি অলিম্পিকে (১৯৭২, ১৯৭৬, ১৯৮০) সোনা জিতে বিশ্বরেকর্ড করেন।
সোল অলিম্পিকে সাঁতারে সোনাজয়ী হাঙ্গেরির সাঁতারু তোমাস দারনি, ৭০ শতাংশ দৃষ্টিহীন ছিলেন।
অত্যধিক লম্বা হাতের জন্য জার্মান সাঁতারু মিশায়েল গ্রস-কে ‘অ্যালব্যাট্রস’ নামে ডাকা হত।
৭৭৬ খ্রিস্টাব্দে গ্রিসে শুরু হওয়া প্রথম অলিম্পিয়াডে দৌড় প্রতিযোগিতা বা ‘স্টেড রেস’-এ বিজয়ী কোরাইবাস নামে এক রাঁধুনি।
প্রাচিন গ্রিক অলিম্পিয়াডের পূত মশাল ৫০ জ্বালানো হত আতস কাঁচের মাধ্যমে, সূর্যরশ্মি থেকে, গ্রিসের দেলফোয় মন্দিরের দেবতা আপল্লনের নারী পুরোহিতদের সাহায্যে। সেই প্রথা এখনও অক্ষুণ্ণ।
প্রাচিন অলিম্পিক্স শুরু হয় গ্রিক অঙ্গরাজ্য এলিসের নৃপতি ইফিতাসের উদ্যোগে ৩৯৩ সালে এই অলিম্পিয়াড নিষিদ্ধ করেন বিজয়ী রোমান সম্রাট থিওদেসিউস।
আধুনিক অলিম্পিক্সের অনুপ্রেরণা ছিল ১৮৫৯ সালে গ্রিক সেনাপ্রধান, মেজর ইউয়ানগেলিস জ্যাপাসের উদ্যোগে আয়োজিত ‘প্যান-হেলেনিক গেমস’।
প্রথম আধুনিক অলিম্পিক্সে ম্যারাথনে স্বর্ণপদক পান গ্রিসের শহর মারৌসিস ডাকপিওন ও মেষপালক স্পিরোস | ল্যুইস এ পর্যন্ত একমাত্র গ্রিক অ্যাথলিট হিসেবে ১৮৯৬ সালে |
প্রথম এশিয়াবাসী হিসেবে অলিম্পিক্সে সোনা জেতেন জাপানের পুরুষ অ্যাথলিট মিকিও ওদা। ১৮২৮ এর | আমস্টারডাম (হল্যান্ড) অলিম্পিয়াডে ট্রিপল জাম্পে ওদা | এই কৃতিত্ব অর্জন করেন।
প্রথম ভারতীয় হিসেবে, ব্যক্তিগতভাবে অলিম্পিক্সে পদক (ব্রোঞ্জ) জেতেন কেশবদাদা যাদব। ১৯৫২-র হেলসিঙ্কি (ফিনল্যান্ড) অলিম্পিয়াডে যাদব কুস্তির ব্যান্টমওয়েট বিভাগে এই কৃতিত্ব পান। ওই বিভাগে সোনা ও রূপো পান যথাক্রমে জাপানের শোহাচি ইশি এবং সোভিয়েত গণরাজ্যের রশিদ মামেদবেকোভ।
১৯৬৪-র টোকিও ও ১৯৬৮-র মেক্সিকো অলিম্পিয়াডে মেয়েদের ১০০ মিটার দৌড়ে সোনা জেতেন মার্কিন দেশের ওয়াওমায়া টাইউস।
ভারত, হকিতে শেষবার সোনা জেতে ১৯৮০-র মস্কো অলিম্পিয়াডের ফাইনালে স্পেনকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে। ভারতের অধিনায়ক ছিলেন বাসুদেবন ভাস্করন। স্পেনের হয়ে হ্যাটট্রিক করেন হুয়ান আমাত।
১৯১২-র স্টকহোম (সুইডেন) অলিম্পিয়াডে সর্বপ্রথম মেয়েদের একমাত্র সাঁতার ইভেন্ট ১০০ মিঃ ফ্রিস্টাইলে সোনা, রুপো ও ব্রোঞ্জ জেতেন অস্ট্রেলিয়ার ফ্যানি ড্যুরাক, অস্ট্রেলিয়ার উইলহেলমিনা ওয়াইলি ও ব্রিটেনের জেনি ফ্লেচার।
১৯০৮-এর লন্ডন অলিম্পিয়াডে সর্বপ্রথম পুরুষদের ফুটবল অন্তর্ভুক্ত হয়। এই বছর ফুটবলে সোনা, রুপো ও ব্রোঞ্জ পায় ব্রিটেন, ডেনমার্ক ও হল্যান্ড। ১৯১২-র স্টকহোম | অলিম্পিয়াডেও ওই তিনটি দেশই ফুটবল পদক পায়।
পর পর দু’টি অলিম্পিয়াডে পুরুষ ম্যারাথনে সোনা পান ইথিওপিয়ার আবেবে বিকিলা ও পূর্ব জার্মানির ভালদেমার সিয়েরপিনস্কি।
১৯৮০-র অলিম্পিয়াডে পুরুষদের ৫০০০ ও ১০০০০মিটার দৌড়ে সোনা জিতে বিশ্বরেকর্ড ইথিওপিয়ার মিরাস ইফতার।

এটিও জেনে নিনঃ-ভারতের বিভিন্ন পুরুস্কারের প্রদানকারী তালিকা PDF সহ

File Name: অলিম্পিকের কিছু তথ্য ও তার তালিকা PDF সহ

File Format: PDF

PDF File Name : অলিম্পিকের কিছু তথ্য ও তার তালিকা PDF সহ

Total Page No: 4

PDF File Size: 485 kbps

Download link: অলিম্পিকের কিছু তথ্য । Download link:- অলিম্পিকের কিছু তথ্য ও তার তালিকা PDF সহ

অলিম্পিকের কিছু তথ্য ও তার তালিকা PDF সহ
অলিম্পিকের কিছু তথ্য ও তার তালিকা PDF সহ

Leave a Reply

sixteen + 3 =