জেনারেল নলেজপরিবেশ ও বিজ্ঞান

আলোর গতিবেগ আবিষ্কারের আসল কাহিনী

বিজ্ঞানীরা মাত্র কয়েক দশক আগে প্রমান করেছেন আলোর গতিবেগ প্রতি সেকেন্ডে ১ লক্ষ ৮৬ হাজার মাইল। অথচ অলৌকিক গ্রন্থ ঋগবেদে হাজার বছর আগেই নিখুঁত ভাবে আলোর গতিবেগ গানিতিক ভাবে প্রমান করে দিয়েছে। []

Advertisement 30% Off, West Bengal Auxiliary Nursing & Midwifery And General Nursing & Midwifery Guide Book (Bengali Version)

আলোর গতিবেগ আবিষ্কারের আসল কাহিনী

ঋগবেদ গ্রন্থে নিখুঁত আলোর গতিবেগ।

প্রমান-১ :

“যোজনম্‌ সহস্ত্রে দোয়ে, দোয়ে শতে, দোয়ে চঃ যোজনে।

একিনম্‌ নিমির্ষাদ্ধেন কর্মেনঃ নমস্তুতে।।”

অর্থাৎ 2202 যোজন পথ নিমিষের অর্ধেক সময়ে (যিনি অতিক্রম) কর্ম্ম করেন তাঁকেনমষ্কার।

এখানে দূরত্বের একক যোজন এবং সময়ের একক নিমিষকে যদি আধুনিক মিটার ও সেকেন্ডে নেওয়া যায়, তাহলে কি হয় দেখা যাক।

1 যোজন = 4 ক্রোশ্‌

1 ক্রোশ্‌ = 8000 গজ্‌

1 গজ্‌ = 0.9144 মিটার

অর্থাৎ 1 যোজন = 4 x 8000 x 0.9144 = 29260.80 মিটার

15 নিমিষ = 1 ক্ষত

15 ক্ষত = 1 লঘু

30 লঘু = 1 মুহূর্ত

30 মুহূর্ত = 1 দিবারাত্র

1 নিমিষ = (24 x 60 x 60) / (30 x 30 x 15 x 15) = 0.4267সেকেন্ড

তাহলে 1/2 নিমিষে অতিক্রম করে 2202 যোজন মানে

1/2 x 0.4267 সেকেন্ডে অতিক্রম করে 2202 x 29260.80 মিটার

বা 1 সেকেন্ডে অতিক্রম করে (2202 x 29260.80 x 2) / 0.4267 = 302002726.04 মিটার

বা 3.02 x 10^8 মিটার যা বর্ত্তমানে নির্ধারিত আলোকের গতিবেগের প্রায় সমান।

প্রমান ২ :

ঋগবেদের প্রথম মণ্ডলের ৫০ সূক্তের চতুর্থ মন্ত্রটি বলে,

“তরণির্বিশ্বদর্শতো জ্যোতিষ্ক্রদসি সূর্য।

বিশ্বমা ভাসিরোচনম।”

যার অর্থ, হে দ্রুতগামী সূর্য, আলোকের স্রষ্টা, তুমি সারা বিশ্বকে আলোকিত কর।

তাঁর ঋগবেদের টীকায়, চতুর্দশ শতকে বিজয়নগর রাজ্যের (কর্ণাটক) রাজা বুক্কের সভার পণ্ডিত সায়নাচার্য লিখছেন,

“তথা চ স্মর্য়তে যোজনম।

সহস্রে দ্বে দ্বে শতে দ্বে চ যোজনে

একেন নিমিষার্ধেন ক্রমমান।”

যার অর্থ, ‘এখানে স্মরণ করা হচ্ছে যে সূর্য (আলো) অতিক্রম করে ২২০২ যোজন অর্ধেক নিমিষে।’

মহাভারতের শান্তিপর্বের মোক্ষধর্ম পর্বে নিমিষ সম্পর্কে বলা হয়েছে,

১৫ নিমিষ = ১ ক্ষত

৩০ ক্ষত = ১ কাল

৩০.৩ কাল = ১ মুহূর্ত

৩০ মুহূর্ত = ১ দিবারাত্র

তার মানে ২৪ ঘন্টা বা ৮৬,৪০০ সেকেন্ডে ৩০ x ৩০.৩ x ৩০ x ১৫ = ৪০৯,০৫০ নিমিষ।

১ নিমিষ = ০.২১১২ সেকেন্ড।

প্রাচীন বৈদিক গ্রন্থ বিষ্ণুপুরাণের প্রথম মণ্ডলের ষষ্ঠ অধ্যায়ে যোজন সম্পর্কে বলা আছে,

১০ যবোদর = ১ যব

১০ যব = ১ আঙ্গুল (৩/৪ ইঞ্চি)

৬ আঙ্গুল = ১ পদ

২ পদ = ১ বিতস্তি

২ বিতস্তি = ১ হস্ত

৪ হস্ত = ১ ধনু, দণ্ড বা পৌরুষ (কোনো পুরুষের উচ্চতা, ৬ ফুট)

২০০০ ধনু = ১ গব্যুতি (যতদূর অবধি কোনো গরুর হাম্বারব পৌঁছয়, ১২০০০ ফুট)

৪ গব্যুতি = ১ যোজন (৯.০৯ মাইল)

তাহলে ২২০২ যোজন যায় অর্ধেক নিমিষে,

২২০২ x ৯.০৯ = ২০,০১৬.১৮ মাইল যায় ০.১০৫৬ সেকেন্ডে,

১৮৯,৫৪৭ মাইল প্রতি সেকেন্ডে।

আর আধুনিক বিজ্ঞান অনুসারে আলোর গতিবেগ সেকেন্ডে ১৮৬,০০০ মাইল! সোর্স- ইন্টারনেট

Leave a Response

সাবক্রাইব করে পাশে থাকুন 😷

30,000+ আমাদের পরিবারে যুক্ত হয়েছেন। আপনিও সাবক্রাইবার করে যুক্ত হোন।