সামাজিক প্রয়োগছোটদের সাধারন জ্ঞানজেনারেল নলেজ

শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর

boys, kids, children

শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তরঃ এই পোষ্টে শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর শেয়ার করা হল। বিভিন্ন চাকুরী পরীক্ষা এবং প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষায় উক্ত প্রশ্ন উত্তরগুলি কাজে আসবে। নিম্নে শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর

শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন: পাঠ্যক্রমের অংশকে কী বলা হয় ?

উত্তর → পাঠ্যসূচি।

প্রশ্ন: ভারতের কর্মকেন্দ্রিক পাঠ্যক্রমের প্রবর্তক কে ?

উত্তর : জাতির জনক মােহনদাস করমচাঁদ গান্ধী।

প্রশ্ন: সুচিন্তিত পাঠ্যক্রমের ভূমিকাটি কী ?

উত্তর: শিক্ষার্থীদের মধ্যে সুস্থ সমাজচেতনা গড়ে তুলতে নাগরিকতা বােধের উৎকর্ষ ঘটাতে জাতীয় ঐক্যবােধ সৃষ্টি করতে সুচিন্তিত পাঠ্যক্রমের ভূমিকাটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ।

প্রশ্ন: কার সর্বাঙ্গীণ বিকাশের জন্য সুচিন্তিত পাঠ্যক্রমের বিশেষ প্রয়ােজন?

উত্তর →শিক্ষার্থীর।

প্রশ্ন: বিভিন্ন বয়সের শিক্ষার্থীদের মানসিক ও দৈহিক বৈশিষ্ট্য কী রকমের হয়?

উত্তর → বিভিন্ন রকমের।

প্রশ্ন: শিক্ষার উপাদানগুলি কী কী ?

উত্তর -> বিদ্যালয়, পাঠ্যক্রম, শিক্ষার্থী ও শিক্ষক।

প্রশ্ন: পাঠ্যক্রমের প্রয়ােজন কী?

উত্তর: উদ্দেশ্যমুখী শিক্ষার উদ্দেশ্য পূরণ করার জন্যই পাঠ্যক্রমের প্রয়ােজন।

প্রশ্ন: পাঠ্যক্রম রচনায় শিশুর স্বতঃস্ফূর্ত কাজকর্মের ওপর কে জোর দিয়েছেন ?

উত্তর → ফ্রয়েবেল।

প্রশ্ন: এমিল (Emile) কে ?

উত্তর -> দার্শনিক রুশাের কল্পিত মানসশিশু।

প্রশ্নঃ  আধুনিক শিশুকেন্দ্রিক শিক্ষার (Child Centric Education) জনক কে ?

উত্তরঃ বিখ্যাত শিক্ষাবিদ ও ফরাসি দার্শনিক জঁ জ্যাকুইস রুশাে।

প্রশ্নঃ শিক্ষার লক্ষ্য নয়, লক্ষ্যে পৌঁছাবার উপায় কী ?

উত্তর → পাঠ্যক্রম।

প্রশ্নঃ বিদ্যালয় সমাজের অঙ্গ, আবার এটি কীসের একটি ক্ষুদ্র সংস্করণ ?

উত্তর ⇒ সমাজের।

প্রশ্নঃ শিশুর প্রধান চাহিদাগুলি কী কী ?

উত্তর → (ক) মানবিক চাহিহা, (খ) সামাজিক চাহিদা ও (গ) দৈহিক চাহিদা।

প্রশ্নঃ শিশুর চাহিদাগুলি পূরণ কীভাবে হয় ?

উত্তর- পাঠ্যক্রমের অন্তর্ভুক্ত বিষয়গুলির অভিজ্ঞতা লাভের মাধ্যমে শিশুর চাহিদা পূরণ হয়

প্রশ্নঃ  প্রাচীন ইউরােপের কোন রাষ্ট্রে দেশের স্বার্থে সামরিক শিক্ষাকে বিশেষ অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছিল ?

উত্তর – প্রাচীন স্পার্টা (গ্রিসের অন্তর্গত)।

প্রশ্নঃ  শিক্ষার প্রধান দুটি উদ্দেশ্য কী কী?

উত্তর (ক) শিক্ষার্থীর ব্যক্তিত্বের বিকাশসাধন করা ও (খ) সমাজের অগ্রগতি সাধন করা।

প্রশ্নঃ বর্তমান যুগে শিক্ষা হল কী ধরনের প্রক্রিয়া ?
উত্তর -> পরিবর্তনশীল প্রক্রিয়া।

প্রশ্নঃ কে ইন্দ্রিয় শিক্ষার (Sense Raining) ওপর গুরুত্ব আরােপ করেছিলেন ?

উত্তর → পেস্তলৎসি।

প্রশ্নঃ “শিশুকে তার বর্তমান এবং ভবিষ্যৎ পরিবেশের সঙ্গে সার্থক অভিযােজনের জন্যে তৈরি হতে সাহায্য করাই পাঠ্যক্রমের প্রাথমিক উদ্দেশ্য।”—কে বলেছিলেন ?

উত্তর — কে. সি. সঙ্গয়েদিয়ান।

প্রশ্নঃ পাঠ্যক্রমে পরিবর্তনের স্থান থাকা দরকার কেন?

উত্তর > শিক্ষার্থী ও সমাজের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে পাঠ্যক্রমের পরিবর্তন হওয়া বাঞ্ছনীয়।

প্রশ্নঃ আধুনিক শিক্ষার লক্ষ্য কী ?

উত্তর- প্রত্যেক শিক্ষার্থীর সর্বাঙ্গীণ জীবন বিকাশসাধন করা আর এর জন্যেই প্রয়ােজন বহুমুখী প্রচেষ্টা।

প্রশ্নঃ পাঠ্যক্রম রচনার একটি মূলনীতির উল্লেখ করে।

উত্তর- পাঠ্যক্রম হবে শিক্ষার্থীর চাহিদা ও আগ্রহভিত্তিক।

প্রশ্নঃ পাঠ্যক্রম নির্ধারণের ক্ষেত্রে আমাদের কয়টি পর্যায়ের দিকে নজর রাখতে হয় ?

উত্তরঃ ছয়টি পর্যায়ের দিকে।

শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্নঃ “Curriculum is a runway, along which one runs to reach a goal, a course of study কে বলেছেন ?

উত্তরঃ বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ব্রুবাচার (Brubachar) ।

প্রশ্নঃ আধুনিক শিশুকেন্দ্রিক শিক্ষার মূলকথা কী ?

উত্তরঃ – শিক্ষার্থীর নিজস্ব বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী বিকাশের সুযােগ করে দেওয়া এবং এই বিকাশের ব্যাপারে তার ব্যক্তিগত চাহিদা ও ক্ষমতাগুলােকে অগ্রাধিকার দেওয়া।

প্রশ্নঃ কাদের মতে শিশুর আগ্রহকে কেন্দ্র করেই তার পাঠ্যক্রম রচিত হবে?

উত্তর – প্রকৃতিবাদীদের।

প্রশ্নঃ আধুনিক শিক্ষাশাস্ত্রকে কী হিসাবে ভাবা হয়েছে?

উত্তরঃ আধুনিককালে শিক্ষাবিজ্ঞানে শিক্ষাকে একটি গতীয় বা পরিবর্তনশীল প্রক্রিয়া (Dynamic process) হিসাবে বিবেচনা করা হয়েছে।

প্রশ্নঃ  কারিকুলাম কথাটি কোথা থেকে এসেছে?

উত্তর – শব্দটি লাতিন শব্দ (Currere) থেকে এসেছে। যার অর্থ ঘােড়দৌড়ের মাঠ (Race course) ।

প্রশ্নঃ পাঠ্যক্রমের মৌলিক উপাদান বলতে কী বােঝ ?

উত্তর — সেগুলাের উপর ভিত্তি করে পাঠ্যক্রমের মূল কাঠামােটি নির্ধারণ করা থাকে। সেগুলােকে পাঠ্যক্রমের মৌলিক উপাদান বলা হয়। যেমন (ক) শিক্ষার উদ্দেশ্যাবলি, (খ) সুযােগ-সুবিধা প্রাপ্তির সম্ভাবনা ও (গ) শিক্ষার্থীর চাহিদা ও ক্ষমতা।

প্রশ্নঃ The whole life of the school becomes the curriculum which can touch the life of the student at all points and help in the evaluation of balanced personality.কার রিপাের্টে বলা হয়েছে ?

উত্তর – মুদালিয়র কমিশন।

প্রশ্নঃ শিশু কী করতে ভালােবাসে ?

উত্তর → শিশু খেলা করতে ভালােবাসে। কাজ ও খেলার মধ্যেই তাদের জীবনের চরম স্ফৃত্তি।

প্রশ্নঃ কত খ্রিস্টাব্দে ত্রিপুরার মধ্যশিক্ষা পর্ষদ গঠিত হয়?

উত্তর → ১৯৭৬ খ্রিস্টাব্দে।

প্রশ্নঃ শিশুর সৃজনমূলক কাজ কোনগুলাে ?

উত্তরঃ যে কাজগুলাে শিশু তথা শিক্ষার্থীদের অন্তর্নিহিত সৃজন ক্ষমতার (Creative ability) বিকাশে সহায়তা করে। যেমন—গল্প রচনা, কবিতা লেখা, ছবি আঁকা, ইত্যাদি।

প্রশ্নঃ N.S.S.-এর পুরাে নাম কী ?

উত্তর → National Serivce Scheme বা জাতীয় সেবাপ্রকল্প।

প্রশ্নঃ N.C.C.-র পুরাে নাম কী ? উত্তর – National Cadet Corps বা জাতীয় ক্যাডেট বাহিনী।

প্রশ্নঃ সহপাঠ্যক্রমিক কাজ কাকে বলে?

উত্তরঃ যেসব কার্যাবলি শিক্ষার্থীর বৌদ্ধিক বিকাশের সঙ্গে সঙ্গে তার সামগ্রিক জীবন বিকাশের অন্যান্য দিকেও সহায়তা করে তাকেই বলা হয় সহপাঠ্যক্রমিক কার্যাবলি।

প্রশ্নঃ শিক্ষা বলতে তােমার কী ধারণা ?

উত্তর – জীবনের একটি অভিজ্ঞতাই শিক্ষা, কারণ প্রত্যেক অভিজ্ঞতাই কিছু না কিছু শিক্ষা দিয়ে থাকে। অর্থাৎ মনের অবিচ্ছেদ্য প্রসার এবং সমগ্র জীবনের অবিচ্ছেদ্য দীপ্তিই হল শিক্ষা।

প্রশ্নঃ আত্মােপলব্ধিকেই শিক্ষার মূল লক্ষ্য বলে মনে করেন কারা ?

উত্তর → ভাববাদীরা।

প্রশ্নঃ কোন দার্শনিকরা শিক্ষার্থীর ব্যবহারিক ও সামাজিক আগ্রহকেই বেশি প্রাধান্য দিয়েছিলেন?

উত্তর – প্রয়ােগবাদীরা।

প্রশ্নঃ ব্যায়াম কী ?

উত্তরঃ বিজ্ঞানসম্মত পদ্ধতিতে নিয়মিত দেহ সঞ্চালনের প্রক্রিয়াই হল ব্যায়াম।

প্রশ্ন 11 বিদ্যালয়ের প্রশাসনমূলক সহপাঠ্যক্রমিক কাজের একটি উদাহরণ দাও।

উত্তর → ক্যাপ্টেন বা মনিটরের কাজ।

প্রশ্নঃ শিক্ষায় অভিজ্ঞতার অর্থ কী ?

উত্তর → শিক্ষায় অভিজ্ঞতার অর্থ হচ্ছে পরিবেশের সঙ্গে জীবনের পারস্পরিক ক্রিয়া প্রতিক্রিয়া। ব্যক্তি যেমন সক্রিয়ভাবে পরিবেশের ওপর প্রতিক্রিয়া করে, তেমনি পরিবেশ ও ব্যক্তির ওপর প্রতিক্রিয়া করে।

প্রশ্নঃ  বিতর্কসভায় অংশগ্রহণের ফলে শিক্ষার্থীদের কোন কোন দিকের বিকাশ ঘটে?

উত্তর – বিতর্কসভায় অংশগ্রহণের ফলে শিক্ষার্থীদের আত্মপ্রকাশের, আত্মস্বীকৃতির, প্রশংসা লাভের ও সৃজনশীলতার চাহিদার পূরণ হয়।

প্রশ্নঃ শিক্ষার্থীর বৌদ্ধিক কাজের উদাহরণ দাও।

উত্তর- বিতর্কসভা অথবা বিজ্ঞান সংঘ (Science Club)।

প্রশ্নঃ কত খ্রিস্টাব্দে পশ্চিমবঙ্গে মাধ্যমিক পর্ষদের শিক্ষার প্রথম পর্ব শুরু হয় ?

উত্তর → ১৯৭৪ খ্রিস্টাব্দে।

প্রশ্নঃ কতকগুলি সহপাঠ্যক্রমিক কার্যাবলির নাম করাে।

উত্তর → বিতর্কসভা, শিক্ষামূলক ভ্রমণ, খেলাধুলা, শিশুর বিভিন্ন ধরনের সৃজনাত্মক কাজ ; যেমন-নৃত্য, সংগীত, বাগান করা, সেলাই করা, উলবােনা ইত্যাদি।

প্রশ্নঃ কয়েকটি আন্তর্জাতিক দিবসের নাম করো।

উত্তর → তামাকবিহীন দিবস, আন্তর্জাতিক নারী দিবস, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস, আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস।

প্রশ্নঃ “Teaching Adolescent in Secondary School” বইটি কার লেখা ?

উত্তর- বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ এইচ. এন. রিভলিন।

প্রশ্নঃ  সহপাঠ্যক্রমিক কার্যাবলিকে আমরা কটি শ্রেণিতে ভাগ করতে পারি ও কী কী ?

উত্তর- তিনটি শ্রেণিতে। যথা(ক) শরীরচর্চামূলক কার্যাবলি, (খ) বিশেষ শিক্ষামূলক কার্যাবলি এবং (গ) সামাজিক কার্যাবলি।

প্রশ্নঃ গতানুগতিক শিক্ষায় সহপাঠ্যক্রমিক কার্যাবলির নাম কী ছিল?

উত্তর – বহিঃপাঠ্যক্রমিক কার্যাবলি।

প্রশ্নঃ  S.C.E.R.T-এর পুরাে নাম কী ?

উত্তর- State Council of Education Research and Training বা রাজ্য শিক্ষামূলক গবেষণা ও প্রশিক্ষণ সংসদ।

প্রশ্নঃ N.C.E.R.T-এর পুরাে নাম কী ?

উত্তর – National Council of Education Research and Training বা জাতীয় শিক্ষামূলক গবেষণা ও প্রশিক্ষণ সংসদ।

প্রশ্নঃ শিক্ষার্থীর দৈহিক কাজের একটি উদাহরণ দাও।

উত্তর → খেলাধুলা।

প্রশ্নঃ শিশুর সর্বাঙ্গীণ বিকাশ নির্ভর করে কীসের উপর ?

উত্তরঃ – সুষ্ঠু সমন্বয়ের ওপর।

শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্নঃ ভাষা ও শিক্ষার কৌশল হিসাবে সহপাঠ্যক্রমে কী ব্যবহৃত হয় ?

উত্তর → বিদ্যালয়ের দেওয়াল পত্রিকা, বিতর্কসভা ইত্যাদি।

প্রশ্নঃ শিক্ষার্থীরা বিনােদনমূলক শিক্ষা কোথা থেকে পায় ? উত্তর — সহপাঠ্যক্রমিক কার্যাবলির মাধ্যমে।

প্রশ্নঃ কাকে অনাবৃত্ত স্কুল বলে ?

উত্তর – বিদ্যালয়ের মাঠকে।

প্রশ্নঃ বিশেষ শিক্ষামূলক কার্যাবলিগুলি কী কী ?

উত্তর – সৃজনাত্মক কাজ, আত্মপ্রকাশমূলক কাজ, রসােপলব্ধিমূলক কাজ, প্রশাসনমূলক কাজ।

প্রশ্নঃ দুটি সৃজনাত্মক কাজের উদাহরণ দাও।

উত্তর – গল্প, প্রবন্ধ, কবিতা ইত্যাদি রচনা, ছবি আঁকা ও বিভিন্ন হাতের কাজ।

প্রশ্নঃ শরীরচর্চামূলক কাজের উদ্দেশ্য কী ?

উত্তর – শিক্ষার্থীর দৈহিক, মানসিক, সামাজিক ও নৈতিক বিকাশসাধন করা।

প্রশ্নঃ শরীরচর্চামূলক কার্যাবলির দুটি উদাহরণ দাও।

উত্তর → ব্যায়াম, খেলাধুলা ইত্যাদি।

প্রশ্নঃ সমাজশিক্ষামূলক কাজের উদ্দেশ্য কী? উত্তর → শিক্ষার্থীর সামাজিক ও বৌদ্ধিক বিকাশসাধন করা।

প্রশ্নঃ শিক্ষার্থীর সর্বাঙ্গীণ বিকাশ বলতে কী বোঝায় ?

উত্তর → শিক্ষার্থীর সর্বাঙ্গীণ বিকাশ বলতে কেবলমাত্র বৌদ্ধিক বিকাশকে বােঝায় না, জীবনের সকল দিকের সামঞ্জস্যপূর্ণ বিকাশই সর্বাঙ্গীণ বিকাশ অর্থাৎ সামাজিক বিকাশ, প্রক্ষোভিক বিকাশ, আধ্যাত্মিক ও নৈতিক বিকাশের দিকগুলিকে চিহ্নিত করে।

প্রশ্নঃ শিক্ষার্থীর দুঃসাহসিক কাজের কয়েকটি নাম করো।

উত্তর → যেমন—পর্বতারােহণা (Mountaineering) পদব্রজে বা সাইকেলে দেশভ্রমণ ইত্যাদি।

প্রশ্নঃ কয়েকটি সমাজসেবামূলক কাজের উদাহরণ দাও।

উত্তর – স্বাস্থ্য সপ্তাহ পালন করা, জনশিক্ষার প্রসার ঘটানো, নিরক্ষরতা দূরীকরণ, N.C.C এবং N.S.S-এর বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজ ইত্যাদি।

প্রশ্নঃ সমাজশিক্ষামূলক কার্যাবলির দুটি উদাহরণ দাও। উত্তর – (১) সমাজসেবামূলক কাজ ও (২) সামাজিক প্রশাসনমূলক কাজ

প্রশ্নঃ বিশেষ শিক্ষামূলক কার্যাবলির উদ্দেশ্যগুলি লেখাে। উত্তর — শিক্ষার্থীর বৌদ্ধিক ও মানসিক বিকাশসাধন করা।

প্রশ্নঃ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর প্রশাসনমূলক কাজগুলি কী কী? উত্তর – ছাত্র সংসদের কাজ, সভা সমিতি পরিচালনা করা ইত্যাদি।

প্রশ্নঃ আত্মপ্রকাশমূলক কাজের উদাহরণ দাও।

উত্তর – অভিনয়, বিতর্কসভা, সাহিত্যসভা।

প্রশ্নঃ ক্রেশ কী?

উত্তর – এটি হল প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষালয়। প্রধানত এ ধরনের প্রতিষ্ঠানে থাকে লেখাপড়ার সঙ্গে সঙ্গে শিশুদের সাময়িক সময়ের জন্য থাকা ও খাওয়ার একটি সুস্থ ও সুন্দর গৃহালয়। যে সমস্ত মায়েরা চাকুরি করেন তাদের সন্তান-সন্ততিদের দেখাশােনার সম্পূর্ণ ভার এই ক্রেশ (Creche)-এর ওপর। বাচ্চাদের রক্ষণাবেক্ষণের একটি আদর্শ স্থান।

প্রশ্নঃ নার্শারি স্তরের পাঠ্যক্রমে কী কী থাকে ?

উত্তরঃ খেলা, সংগীত, গল্প বলা, ছবি আঁকা, কাদা-বালি-মাটি দিয়ে খেলনা বা মুর্তি তৈরি করা ইত্যাদি।

প্রশ্নঃ গিফট (Gift) কী ?

উত্তরঃ জার্মান দার্শনিক ফ্রয়েবেলের কিন্ডারগার্টেন বিদ্যালয়ে অনুসৃত একটি শিক্ষামূলক উপকরণ।

প্রশ্নঃ বুনিয়াদি শিক্ষার জনক কে ?

উত্তরঃ গান্ধিজী।

প্রশ্নঃ শিক্ষা মানুষের কী ধরনের প্রক্রিয়া ?

উত্তর – জীবনব্যাপী।

প্রশ্নঃ  প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা কাকে বলে ?

উত্তর → সাধারণত প্রাথমিক স্তরের শিক্ষাকালের পূর্বস্তরকে বলা হয় প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা।

প্রশ্নঃ  নার্শারি বিদ্যালয় কে স্থাপন করেন?

উত্তর – মার্গারেট ম্যাকমিলান ও র্যাচেন ম্যাকমিলান নামে ইংল্যান্ডের দুই ভগিনী।

প্রশ্নঃ নার্শারি বিদ্যালয় কোথায় প্রথম প্রবর্তিত হয়?

উত্তর – ইংল্যান্ডে।

প্রশ্নঃ বর্তমানে পৃথিবীর সকল দেশে কী হিসেবে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে?

উত্তর – সাধারণ শিক্ষা।

প্রশ্নঃ নার্শারি শব্দটির অর্থ কী ?

উত্তর → নার্শারি শব্দের অর্থ লালনপালন করা। যেমন-ফুল ও ফলের বাগানে চারাগাছ পালন।

প্রশ্নঃ প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা কাকে বলে?

উত্তর – সাধারণত প্রাথমিক স্তরের শিক্ষাকালের পূর্বস্তরকে বলা হয় প্রাক প্রাথমিক শিক্ষান্তর।

প্রশ্নঃ পৃথিবীর শ্রেষ্ঠতম জীব কোনটি ?

উত্তরঃ মানুষ।

প্রশ্নঃ সামাজিক মিথস্ক্রিয়ার দুটি রূপের নাম করাে।

উত্তর → প্রতিযােগিতা ও সহযােগিতা।

প্রশ্নঃ পারস্পরিক ক্রিয়া মনােবিদ্যায় অন্য কী নামে পরিচিত ?

উত্তর → মিথস্ক্রিয়া।

প্রশ্নঃ মিথস্ক্রিয়ার সক্রিয় উপাদান কয়টি ?

উত্তর → দুটি।

প্রশ্নঃ মনােবিদ্যায় মানুষের জীবনের বিভিন্ন ধরনের পরিবর্তনের প্রক্রিয়াগুলি কী ?

উত্তর – বৃদ্ধি, বিকাশ, শিখন, পরিমন।

প্রশ্নঃ মানুষের জীবন বিকাশের কয়টি স্তর ও কী কী ?

উত্তর – চারটি। যথা-(ক) শৈশব, (খ) বাল্যকাল, (গ) কৈশাের ও (ঘ) বয়স্ককাল

প্রশ্নঃ বংশগতির একক কী নামে পরিচিত?

উত্তর → জিন।

শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্নঃ পরিবেশ কাকে বলে ?

উত্তর – পরিবেশ কতকগুলি শক্তি, যেগুলি ব্যক্তির উপর প্রভাব বিস্তার করে এবং আচরণে পরিবর্তন আনে।

প্রশ্নঃ আচরণ কাকে বলে ? উত্তর – প্রাণীর সংগতিবিধানের প্রয়াসকে আচরণ বলে।

প্রশ্নঃ শিক্ষার লক্ষ্যবস্তু স্থির করে কোন শাস্ত্র ?

উত্তর – দর্শনশাস্ত্র।

প্রশ্নঃ শিশুর জীবন বিকাশে কোন বিজ্ঞানী পালিত সন্তানদের নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা করেছেন ?

উত্তরঃ → বারবারা বার্কস।

প্রশ্নঃ বংশগতি সম্পর্কে পৃথকীকরণ তত্ত্বটি কার ?

উত্তর -> মেন্ডেলের।

প্রশ্নঃ বিকাশ কাকে বলে?

উত্তর – বিকাশ হল জীবনব্যাপী ক্রম উন্নয়নশীল সামগ্রিক গুণগত পরিবর্তনের প্রক্রিয়া।

প্রশ্নঃ বংশগতি কী ?

উত্তর – এটি হল এমন একটি বস্তু যা মানুষের একান্ত নিজস্ব সম্পত্তি এবং এটি সে তার উত্তরাধিকার সূত্রে পূর্বপুরুষদের কাছ থেকে অর্জন করে।

প্রশ্নঃ I.C.D.S-এর পুরাে নাম লেখাে।

উত্তর → Integrated Child Development Scheme

প্রশ্নঃ E.C.E.C-এর পুরাে নাম কী ?

উত্তর – Early Childhood Education and Care

প্রশ্নঃ প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা নিয়ন্ত্রিত না অনিয়ন্ত্রিত শিক্ষা ?

উত্তর — গতানুগতিক অর্থে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা অনিয়ন্ত্রিত। কিন্তু আধুনিক অর্থে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা নিয়ন্ত্রিত।

প্রশ্নঃ ক্যাসা ব্যামৰিনি (Casa Bambini) কী ?

উত্তর – বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মাদাম মন্তেসরীর প্রতিষ্ঠিত একটি প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম।

প্রশ্নঃ কিন্ডারগার্টেন শব্দটির অর্থ কী ?

উত্তরঃ এটি একটি জার্মান শব্দ। এর অর্থ হল শিশুউদ্যান।

প্রশ্নঃ ইনফ্যান্ট স্কুল (Infant School ) কী ?

উত্তর – ২-৫ বছর বয়সের শিক্ষার্থীদের প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা বিদ্যালয়।

প্রশ্নঃ শিক্ষাক্ষেত্রে আধুনিক ভাবধারার প্রবর্তক কে ছিলেন ?

উত্তর – রুশে।

এটিও পড়ুন – পুরুলিয়া জেলা সম্পর্কিত প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্নঃ শিক্ষায় সক্রিয়তা কথাটির অর্থ কী?

উত্তর – শিশুশিক্ষার মূলমন্ত্র হিসাবে সক্রিয়তা কথাটির অর্থ হল কাজের স্বাধীনতা। সক্রিয়তাকে খেলা ও কাজের মাধ্যমে ব্যাখ্যা করা যায়। খেলা গুরুত্বপূর্ণ সক্রিয়তা, যার মাধ্যমে ব্যক্তিগত ও সৃজনশীল ক্ষমতা বিকশিত হয়।

প্রশ্নঃ কার ‘অকুপেশন হল কতকগুলাে কর্মসূচক খেলা?

উত্তরঃ ফ্রয়েবেল।

প্রশ্নঃ ডিডাকটিক অ্যাপারেটাস (Didactic Apparatus) কা?

উত্তর — মন্তেসরীর প্রবর্তিত প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রীদের বিভিন্ন প্রকার যান্ত্রিক কৌশল। ব্যবহার করার উপায়-বিশেষ হল ডিডাকটিক অ্যাপারেটাস।

প্রশ্নঃ আধুনিক অর্থে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা বলতে কী বােঝ?

উত্তর → বর্তমানে ২ থেকে ৬ বছরের শিশুদের নির্দিষ্ট কতকগুলি উদ্দেশ্যের ভিত্তিতে নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শিক্ষাদানের যে ব্যবস্থা করা হয়, তাই হল প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা।

প্রশ্নঃ সামাজিক শিক্ষণ অধিকাংশ ক্ষেত্রেই অপরের কাছ থেকে শেখা আচরণ ছাড়া আর কিছুই নয়। বলেছেন—জিসহার্ট/কিমবল ঈয়ং/সিলি।

উত্তর – কিমবল ঈয়ং।

প্রশ্নঃ ‘প্রকৃতি মানুষকে সামাজিক জীব হিসাবে সৃষ্টি করেছে?কে বলেছেন?

উত্তর- অ্যারিস্টটল।

প্রশ্নঃ শিশুর শিক্ষাদানের একটি বৈজ্ঞানিক পদ্ধতির নাম করাে।

উত্তর → খেলা ও খেলার মাধ্যমে শিক্ষাদান।

প্রশ্নঃ শিশুর জীবন বিকাশে কোন মনােবিজ্ঞানী বংশগতির ওপর সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিয়েছিলেন ?

উত্তর → স্যার ফ্রান্সিস গ্যালটন।

প্রশ্নঃ বংশগতিকে সাধারণত কয়টি ভাগে ভাগ করা যায় ও কী কী ?

উত্তরঃ তিনটি ভাগে। যথা(ক) মানসিক, (খ) দৈহিক, (গ) মানস প্রকৃতিগত।

প্রশ্নঃ শিশুকেন্দ্রিক শিক্ষা ব্যবস্থার জনক কে?

উত্তর – দার্শনিক রুশাে।।

প্রশ্নঃ শিশুর জীবন বিকাশে পরিবেশের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন এমন দুজন বিজ্ঞানীর নাম করাে।

উত্তর → ক্যাটেল ও জে. বি. ওয়াটসন।

প্রশ্নঃ  বংশগতি সম্পর্কে অর্জিত বৈশিষ্ট্য সঞ্চালক মতবাদটি কার ?

উত্তরঃ বিশিষ্ট মনােবিদ ল্যামার্কের।

প্রশ্নঃ “বংশগতি ও পরিবেশ পরস্পর সম্পর্কযুক্ত বিকাশের উপাদান।”-উক্তিটি কার ?

উত্তর → উক্তিটি মনােবিদ পিটার স্যান্ডিফোর্ডের।

প্রশ্নঃ শিশুর চিন্তাশক্তি, কল্পনাশক্তি ও বুদ্ধি এগুলি কীসের ধারা?

উত্তর → শিশুর মানসিক বংশগতির ধারা।

প্রশ্নঃ রিফ্লেক্স কাকে বলে ?

উত্তর → শিশুর সহজাত আচরণের সরল রূপ হল রিফ্রেক্স বা প্রতিবর্ত ক্রিয়া।

প্রশ্নঃ  কোন বিজ্ঞানী ফ্রেড ও এডুইন নামে দুজন যমজ সন্তান নিয়ে পরীক্ষা করেছেন

উত্তর → মনােবিজ্ঞানী নিউম্যান।

প্রশ্নঃ কোন জীববিজ্ঞানী গ্যালটন পরিবারের বংশধরদের পর্যবেক্ষণ করেন

উত্তর → কার্ল পিয়ারসন।

প্রশ্নঃ শিশুর মনের প্রকৃতিগত দিক বা মেজাজ কীসের ধারা ?

উত্তরঃ শিশুর মানস প্রকৃতিগত ধারা।

প্রশ্নঃ বুদ্ধি কাকে বলে ?

উত্তর — বুদ্ধি হল ব্যক্তিজীবনের সময়ভিত্তিক বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যের পরিমাণগত পরিবর্তনের প্রক্রিয়া।

প্রশ্নঃ মনােবিজ্ঞান বিশেষ করে কোন বিজ্ঞানের সঙ্গে একান্তভাবে যুক্ত ?

উত্তরঃ সমাজবিজ্ঞানের সঙ্গে।

প্রশ্নঃ কোনাে শিশুর গায়ের রং বা চুলের রং—কীসের ধারা ?

উত্তর → শিশুর দৈহিক বংশগতির ধারা।

প্রশ্নঃ শিক্ষা পরিবেশ কীরূপ হওয়া উচিত ?

উত্তরঃ শিক্ষা পরিবেশ এমন হওয়া উচিত যার মাধ্যমে ব্যক্তি নিজেকে পূর্ণভাবে বিকশিত করার সুযােগ পায়।

প্রশ্নঃ শিশুর জীবন বিকাশের ক্ষেত্রে কারা প্রধান ভূমিকা গ্রহণ করে ?

উত্তর → শিশুর জীবন বিকাশের ক্ষেত্রে বংশগতি এবং পরিবেশ প্রধান ভূমিকা গ্রহণ করে।

প্রশ্নঃ মানব প্রকৃতির মূলতত্ত্ব হিসাবে সহানুভূতির কথা প্রথম কে উল্লেখ করেন?

উত্তরঃ – দার্শনিক প্রবর ডেভিড হিউম।

এটিও পড়ুন – বর্ধমান জেলা সম্পর্কিত প্রশ্ন উত্তর

শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর, জেনে নিন শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর, Download Free শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর, Latest Download শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর, না জানলে জেনে নিন শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর, বিভিন্ন পরীক্ষায় আসার মতো শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর, Banglay শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর, শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম সংক্রান্ত 500 প্রশ্ন উত্তর বাংলায়, Bengali শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম GK , Download শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম GK, Free Download শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম GK, Latest Free Download শিক্ষা ও পাঠ্যক্রম GK

Leave a Response