খেলাধুলা সম্পর্কিত

সাফ গেমস সম্পর্কিত জানা অজানা তথ্য

sports

সাফ গেমসঃ দক্ষিণ এশীয় গেমস (South Asian Games, SA Games) দ্বি-বার্ষিকভিত্তিতে প্রবর্তিত বহু-ক্রীড়া প্রতিযোগিতা হিসেবে দক্ষিণ এশিয়ার ক্রীড়াবিদগণ অংশগ্রহণ করে থাকেন। কিন্তু মাঝেমাঝেই এটি অনিয়মিতভাবে অনুষ্ঠিত হতে দেখা যায়। ১৯৮৩ সালে দক্ষিণ এশীয় ক্রীড়া সংস্থা গঠন করা হয়। সংস্থার নির্বাহী পরিচালনা পরিষদ কর্তৃক সর্বপ্রথম এ প্রতিযোগিতাটি ১৯৮৪ সালে নেপালের কাঠমুন্ডুতে অনুষ্ঠিত হয়। ২০০৪ সাল পর্যন্ত এ প্রতিযোগিতার পূর্বেকার নাম ছিল দক্ষিণ এশীয় ফেডারেশন গেমস বা সাফ গেমস। এ সংস্থার বর্তমান সদস্য সংখ্যা হচ্ছে ৮। সার্কভূক্ত নতুন সদস্য দেশ হিসেবে আফগানিস্তান এ পর্যন্ত দু’টি প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে বাংলাদেশ, ভূটান, ভারত, মালদ্বীপ, নেপাল, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা একাদশ প্রতিযোগিতার সবগুলোতেই অংশগ্রহণ করেছে।প্রায়শঃই এ প্রতিযোগিতাকে অলিম্পিক গেমসের এশীয় সংস্করণ হিসেবে গণ্য করা হয়।

Advertisement 30% Off, West Bengal Auxiliary Nursing & Midwifery And General Nursing & Midwifery Guide Book (Bengali Version)

সাফ গেমস (South Asian Games [SAF Games])

1982 সালের নভেম্বর মাসে ভারতের রাজধানী নতুন দিল্লিতে অনুষ্ঠিত দঃ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলির শীর্ষ বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় কমনওয়েলথ গেমসের মতাে দঃ-পূর্ব এশিয়া ভুক্ত দেশ গুলোতে সাফ গেমস অনুষ্ঠিত হবে।

সূচনা –  1984 সালে

স্থান – কাঠমান্ডু।

আয়োজক দেশ- নেপাল।

বানী – Peace, Prosperity & Progress

ঢাকায় অনুষ্ঠিত একাদশ সাফ গেমসে 90টি সােনা, 55টি রূপাে ও 30টি ব্রোঞ্জ পেল ভারত। দ্বাদশ সাফ গেমস (2013) অনুষ্ঠিত হল

ভারতে। ত্রয়ােদশ সাফ গেমস অনুষ্ঠিত হবে নেপালের (2014) কাঠমান্ডুতে।

এটিও পড়ুন –

Leave a Response

সাবক্রাইব করে পাশে থাকুন 😷

30,000+ আমাদের পরিবারে যুক্ত হয়েছেন। আপনিও সাবক্রাইবার করে যুক্ত হোন।